27.9 C
Chittagong
বৃহস্পতিবার, ১৩ জুন ২০২৪
প্রচ্ছদখেলাধুলাচেলসি ছেড়ে ব্রাজিলে সিলভা

চেলসি ছেড়ে ব্রাজিলে সিলভা

  নিজস্ব প্রতিবেদক

এ মৌসুম শেষে চেলসি ছাড়ছেন থিয়াগো সিলভা । ইংলিশ ফুটবল ছেড়ে নিজ দেশের ক্লাব ফ্লুমিনেন্সে ফিরে যাচ্ছেন এই ব্রাজিলিয়ান সেন্টার-ব্যাক।

ব্রাজিলে ফিরে যাওয়ার আগে অবশ্য চেলসির জার্সিতে ইংলিশ প্রিমিয়ার লিগে আরও ৪টি ম্যাচ খেলবেন সিলভা। এ মৌসুমে চেলসির অবস্থান বেশ খারাপ। ৩৪ ম্যাচ শেষে ৫১ পয়েন্ট নিয়ে লিগে তাদের অবস্থান অষ্টম স্থানে। বর্তমান অবস্থান অনুযায়ী, শীর্ষ চারে থেকে লিগ শেষ করার সম্ভাবনা নেই তাদের। ফলে আগামীবার চ্যাম্পিয়নস লিগে খেলার আশা শেষ তাদের। এমনকি সম্ভাবনা নেই ইউরোপা লিগে খেলারও।

দলবদলের বিশ্বস্ত সূত্র ক্রীড়া সাংবাদিক ফ্যাব্রিজিও রোমানো জানিয়েছেন, এরইমধ্যে ব্রাজিলিয়ান ক্লাব ফ্লুমিনেন্সে যাওয়ার ব্যাপারে মৌখিকভাবে সম্মতি জানিয়েছেন ২০১৯ কোপা আমেরিকাজয়ী ব্রাজিল দলের সদস্য সিলভা। ফ্রি এজেন্ট হিসেবে তিনি যোগ দিচ্ছেন ব্রাজিলের শীর্ষ ক্লাব ফ্লুমিনেন্সে। ২০২৬ সালের জুন পর্যন্ত এই ক্লাবের হয়ে খেলবেন ৩৯ বছর বয়সী ডিফন্ডার।

এর আগে ফ্লুমিমেন্সের জার্সিতে ২০০৬ থেকে ২০০৮ সাল পর্যন্ত ১৪৭ ম্যাচ খেলেছেন সিলভা। ডিফেন্ডার হয়েও গোল করেছিলেন ১৪টি। ২০০৭ সালে এই ক্লাবের হয়ে জিতেছিলেন কোপা ব্রাসিলিয়া এবং পরের বছর তার দল কোপা লিবার্তাদোরেসের রানার-আপ হয়েছিল।

২০০৯ সালে তাকে ৮ মিলিয়ন ইউরো ট্রান্সফার ফি’তে ফ্লুমিনেন্স থেকে দলে ভেড়ায় এসি মিলান। ২০১০-১১ মৌসুমে এই ক্লাবের জার্সিতে ইতালিয়ান সিরি আ’র শিরোপা জেতেন সিলভা।

২০১২ সালে রেকর্ড ৪২ মিলিয়ন ইউরোয় সিলভাকে নিয়ে যায় পিএসজি। ওই সময়ের সবচেয়ে দামি ডিফেন্ডার ছিলেন তিনি। ফরাসি ক্লাবটির ইতিহাসে সবচেয়ে বেশি সময় অধিনায়কের দায়িত্ব সামলানোর পাশাপাশি জিতেছেন ৭টি লিগ ওয়ান, ৫টি ফরাসি কাপের শিরোপা।

তার নেতৃত্বে প্রথমবার চ্যাম্পিয়নস লিগের ফাইনালে উঠেছিল পিএসজি। দুর্ভাগ্যজনকভাবে ওই ম্যাচ দিয়েই ফ্রান্সের ফুটবলকে বিদায় জানান তিনি।

এরপর ২০২০ সালে ফ্রি ট্রান্সফারে চেলসিতে যোগ দেন তিনি। যেখানে প্রথম মৌসুমেই পান চ্যাম্পিয়নস লিগ জেতার স্বাদ। এরপর উয়েফা সুপার কাপ ও ফিফা বিশ্বকাপের শিরোপাও যোগ হয় তাদের সাফল্যের মুকুটে।

সর্বশেষ