31.2 C
Chittagong
সোমবার, ২৪ জুন ২০২৪
প্রচ্ছদচট্টগ্রামকক্সবাজারে বন কর্মকর্তা খুন, গ্রেফতার ১

কক্সবাজারে বন কর্মকর্তা খুন, গ্রেফতার ১

  নিজস্ব প্রতিবেদক

কক্সবাজারের উখিয়ায় পরিকল্পিতভাবে মাটি ভর্তি ডাম্পার চাপা দিয়ে বন কর্মকর্তা সাজ্জাদুজ্জামানকে (৩০) হত্যার ঘটনায় ছৈয়দ করিম (৩৫) নামের একজনক গ্রেফতার হয়েছেন। তিনি ট্রাকের মালিক বলে জানিয়েছে পুলিশ। এছাড়া মামলায় এজাহারভুক্ত ৫নং আসামি গ্রেফতার ওই ট্রাকের মালিক।

প্রধান বন সংরক্ষক আমীর হোসেন এসব তথ্য নিশ্চিত করেছেন।

রবিবার ভোররাত সাড়ে তিনটার দিকে রাজাপালং ইউনিয়নের হরিণমারা এলাকায় বনরক্ষার অভিযান চালাতে গিয়ে ‘পাহাড়খেকোর’ ডাম্পারের চাকায় পিষ্ট হয়ে কক্সবাজারের উখিয়ায় বনবিভাগের কর্মকর্তা সাজ্জাদুজ্জামান (৩০) নিহত হন।

সোমবার রাত সাড়ে ১২টার পর বন বিভাগের উখিয়া রেঞ্জ কর্মকর্তা মো. শফিউল আলম বাদী হয়ে ১০ জনের নাম উল্লেখ করে ১৫ জনের বিরুদ্ধে এ মামলা করেন।

মামলার আসামিরা হলেন- উখিয়া উপজেলার রাজাপালং ইউনিয়নের পশ্চিম হরিণমারা এলাকার মোহাম্মদ কাশেমের ছেলে ও ডাম্পার ট্রাকটির চালক মো. বাপ্পী (২৩), একই এলাকার সুলতান আহম্মদের ছেলে ছৈয়দ আলম ওরফে কানা ছৈয়দ (৪০) ও তার ছেলে মো. তারেক (২০), রাজাপালং ইউনিয়নের তুতুরবিল এলাকার নুরুল আলম মাইজ্জার ছেলে হেলাল উদ্দিন (২৭), হরিণমারা এলাকার মৃত আব্দুল আজিজের ছেলে ছৈয়দ করিম (৩৫), একই এলাকার আব্দুল আজিজের ছেলে আনোয়ার ইসলাম (৩৫), আব্দুর রহিমের ছেলে শাহ আলম (৩৫), হিজলিয়া এলাকার ঠান্ডা মিয়ার ছেলে মো. বাবুল (৫০), একই এলাকার ফরিদ আলম ওরফে ফরিদ ড্রাইভারের ছেলে মো. রুবেল (২৪) এবং হরিণমারা এলাকার শাহ আলমের ছেলে কামাল উদ্দিন ড্রাইভার (৩৯)। এছাড়া অজ্ঞাতনামা আসামি করা হয়েছে আরও ৫/৬ জনকে।

এদিকে সাজ্জাদুজ্জামানের হত্যাকারীদের দ্রুত গ্রেফতারের দাবিতে আজ মঙ্গলবার (০২ এপ্রিল) রাজধানীর আগারগাঁওয়ে বন বিভাগের সামনে এক প্রতিবাদ সমাবেশে বক্তারা খুনিদের গ্রেফাতারে দাবি জানিয়ে বলেন, বন কর্মকর্তা সাজ্জাদুজ্জামানকে সুপরিকল্পিতভাবে হত্যা করা হয়েছে। কিন্তু হত্যার দু’দিন পার হলেও প্রশাসন হত্যাকারীদের কাউকে গ্রেফতার করতে পারেনি।

কিছু মানুষের হাতে দেশের বন ধ্বংস হচ্ছে বলেও অভিযোগ করেন বক্তারা।

সর্বশেষ